মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

কৃষি তথ্য সেবা

 

নাগরিক ও সরকারী পর্যায়ে সমস্যা সমূহ এবং সার্ভিস আইডেন্টিফিকেশন:

ক্র:

নং

সেবার ধরণ

সেবা

সেবা প্রদান/প্রাপ্তির ক্ষেত্রে অসুবিধাসমূহ

(Problems & Challenges)

নাগরিক পর্যায় (Problems)

সরকারী পর্যায় (Challenges)

০১

সহায়তা

১.১ প্রযুক্তি সহায়তা

· কৃষি বিষয়ক উন্নত প্রযুক্তি সমূহ কৃষকদের নিকট হস্তান্তর (Technology Transfer)।

· প্রদর্শনী প্লট স্হাপন, মাঠ দিবস উদযাপন, কৃষক র‍্যালী ইত্যাদি ।

◊প্রাথমিক পর্যায়ে কৃষি বিষয়ক উন্নত প্রযুক্তি সমূহ গ্রহণে ঝুঁকি মনে করা।

◊কৃষকদের শিক্ষা ও কৃষি বিষয়ক পর্যাপ্ত জ্ঞানের অভাব।

◊নতুন প্রযুক্তি গ্রহণে অনাগ্রহ।

◊কৃষকদের আর্থিক সমস্যা।

◊প্রয়োজনীয় জনবলের অভাব

◊প্রদর্শনী প্লট স্হাপন, মাঠ দিবস ও কৃষক র‍্যালী বাস্তবায়নের জন্য অপ্রতুল অর্থ বরাদ্দ।

◊Technology Transfer Flow irregular.

১.২ মান সম্মত বীজ উৎপাদনে সহায়তা করা

· নির্ধারিত প্রগতিশীল চাষীদের মাধ্যমে উন্নত মানের বীজ প্রযুক্তি বিষয়ে প্রয়োজনীয় পরামর্শ প্রদান, উৎপাদিত বীজ সঠিকভাবে সংরক্ষণ এবং অন্যান্য চাষীদের মাঝে বিতরণের ব্যবস্হা করা।

◊কৃষকদের বীজ উৎপাদনে অতিরিক্ত উৎপাদন ব্যয় ভার বহনে অনীহা।

◊বীজ সংরক্ষণের জন্য প্রয়োজনীয় গুদাম/পাত্রের অভাব।

◊সংরক্ষিত বীজ খাবার হিসাবে ব্যবহার।

◊উৎপাদিত বীজ বিপণনে সমস্যা।

◊বীজগুদাম ও সংরক্ষণা- গারের অভাব।

◊উৎপাদিত বীজ সরকারী প্রতিষ্ঠান কর্তৃক গ্রহণে অনীহা।

১.৩ কৃষি ঋণ প্রাপ্তিতে সহায়তা প্রদান

· সরকারী ও বেসরকারী প্রতিষ্ঠান হতে কৃষি ঋণ প্রাপ্তিতে সহায়তা প্রদান।

· কৃষি ঋণ প্রাপ্তির অনুকূলে ফসল উৎপাদন পরিকল্পনা প্রণয়নে সহায়তা প্রদান।

· ঋণ বিষয়ক সুবিধাদি এবং প্রযোজ্য সুদের হার বিষয়ে কৃষকদের অবহিত করা।

◊সরকারী ও বেসরকারী প্রতিষ্ঠান হতে ঋণ গ্রহণে হয়রানির স্বীকার হওয়া।

◊সুদের হার বেশী।

◊আর্থিক প্রতিষ্ঠানের স্বতস্ফুর্ত সহযোগিতার অভাব।

১.৪ কৃষি তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তিসহায়তা

· কৃষি বিষয়ক যেকোন তথ্য, পরামর্শ এবং প্রযুক্তি কৃষিকর্মী, কৃষক এবং সাধারণ জনগণের মধ্যে পৌঁছানো।

◊আধুনিক তথ্য ও যোগাযোগ ব্যবস্হা বিষয়ে কৃষকদের জ্ঞানের অভাব।

◊প্রযুক্তি গ্রহণে আর্থিক সামর্থ্যের অভাব।

◊আধুনিক তথ্য ও যোগাযোগ ব্যবস্হার প্রয়োজনীয় কর্মসূচী ও অবকাঠামোর অভাব।

◊দক্ষ জনবলের অভাব।

১.৫ সমন্বিত সম্প্রসারণ সেবা প্রদান

· কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর এবং বিভিন্ন সরকারী, বেসরকারী ও গবেষণা সংস্হার সাথে সমন্বয় সাধনের মাধ্যমে সম্প্রসারণ সেবা প্রদান।

◊কৃষকের চাহিদা মাফিক সমন্বিত সেবার অপ্রতুলতা।

◊সেবা গ্রহণে আর্থিক সামর্থ্যের অভাব।

◊সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠানের মধ্যে সমন্বয়ের ঘাটতি।

১.৬কৃষি পণ্য বিপনণে সহায়তা করা।

· কৃষকের উৎপাদিত পণ্যের বাজারজাত করণে এবং ন্যায্যমূল্য পেতে সহায়তা প্রদান।

◊কৃষক সংগঠনের অভাব।

◊পণ্য পরিবহণে যথাযথ যোগাযোগ ব্যবস্হার অভাব।

◊কৃষিপণ্য বিপণনে মধ্যস্বত্ব- ভোগীদের দৌরাত্ব।

◊কৃষিপণ্য সংরক্ষণ ব্যবস্হার অভাব।

◊কৃষিপণ্য প্রক্রিয়াজাতকরণ ও প্রসেসিং এ সমস্যা।

◊মধ্যস্বত্ব ভোগী ও ফড়িয়াদের প্রভাব মুক্ত কৃষিপণ্য বাজার ব্যবস্হা পরিচালনায় দুর্বলতা।

◊বাজার ব্যবস্হা গড়ে তোলার জন্য পর্যাপ্ত আর্থিক সহযোগিতার অভাব।

১.৭ কৃষি পণ্যের মূল্য সংযোজনে সহায়তা

· কৃষি পণ্যের প্রক্রিয়াজাতকরণ, প্যাকেজিং ও নানাবিধ ব্যবহার মুখী পণ্যে রুপান্তরে কারিগরী সহায়তা প্রদান।

◊কৃষকদের জ্ঞানের অভাব।

◊কৃষকদের আর্থিক অস্বচ্ছলতা।

◊আর্থিক বরাদ্দ অপ্রতুল।

◊দক্ষ জনবলের অভাব।

◊বাজারজাত করণে সরকারী সহায়তার অভাব।

০২

প্রশিক্ষণ

প্রশিক্ষণ প্রদান

· কৃষি বিষয়ক উন্নত প্রযুক্তি সম্পর্কে কৃষকদেরকে হাতেকলমে প্রশিক্ষণ প্রদান।

◊প্রশিক্ষণে অংশ গ্রহণে কৃষকের সময়ের অভাব।

◊প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত প্রযুক্তি প্রয়োগে কৃষকের আর্থিক অস্বচ্ছলতা।

◊অপ্রতুল প্রশিক্ষণ ভাতা।

◊কৃষকদের প্রশিক্ষণের জন্য পর্যাপ্ত বরাদ্দের স্বল্পতা।

◊প্রশিক্ষণ ভাতা কম ।

◊হাতে কলমে শিক্ষাদানে প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষণ সামগ্রীর স্বল্পতা।

◊উচ্চতর প্র্রশিক্ষণ প্রাপ্ত দক্ষ জনবলের অভাব।

০৩

পুনবার্সন

কৃষি পুনবার্সনে সহায়তা

· বন্যা, খরা ও অন্যান্য প্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষয়ক্ষতি পুষিয়ে নেয়ার লক্ষ্যে কৃষি উপকরণ সহায়তা প্রদান।

· ছবি উত্তোলন ও ব্যাংকে গিয়ে একাউন্ট খুলতে কৃষকদের অনীহা।

· ক্ষতির তুলনায় কৃষি পুনবার্সনের অপ্রতুলতা।

· সব ধরনের কৃষক এ সুবিধা পায় না।

· প্রভাবমুক্ত থেকে যথাসময়ে ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকদের তালিকা প্রনয়নে সমস্যা।

· প্রয়োজনীয় জনবলের অভাব।

· আর্থিক বরাদ্দের অপর্যাপ্ততা।

০৪

কৃষি ভর্তুকি

কৃষিতে ভর্তুকি ও উৎপাদনে সহায়তা প্রদান

· কৃষি উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে উপকরণাদি কৃষকের ক্রয় ক্ষমতার মধ্যে রাখার জন্য এবং উৎপাদন খরচ কমানোর জন্য বিভিন্ন সময় সরকারের দেয়া ভর্তুকি উপকরণাদি কৃষকদের মধ্যে বিতরণ।

· ছবি উত্তোলন ও ব্যাংকে গিয়ে একাউন্ট খুলতে কৃষকদের অনীহা।

· ক্ষতির তুলনায় কৃষি পুনর্বাসনের অপ্রতুলতা।

· সব ধরনের কৃষক এ সুবিধা পায় না।

· বাজেটের অভাব।

· পৃথক বাজেট বরাদ্দ থাকে না।

০৫

ব্যাংক হিসাব খুলতে সহায়তা

১০ টাকার বিনিময়ে ব্যাংকে হিসাব খুলতে সহায়তা প্রদান

◊সহজ প্রক্রিয়ায় ১০ টাকা জামানতের বিনিময়ে ব্যাংকে হিসাব খুলতে কৃষকদের সহায়তা প্রদান।

· ছবি উত্তোলন ও ব্যাংকে গিয়ে একাউন্ট খুলতে কৃষকদের অনীহা।

· প্রয়োজনীয় জনবলের অভাব।

০৬

উপকরণ সহায়তা

কৃষি উপকরণ সহায়তা প্রদান

কৃষি উৎপাদন বৃদ্ধির জন্য সরকার কর্তৃক সময়ে সময়ে চাষীদের মাঝে কৃষি উপকরণ সহায়তা প্রদান করা হয়।

· সব ধরনের কৃষক এ সুবিধা পায় না।

· প্রভাবমুক্ত থেকে যথাসময়ে ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকদের তালিকা প্রনয়নে সমস্যা।

· প্রয়োজনীয় জনবলের অভাব।

· আর্থিক বরাদ্দের অপর্যাপ্ততা।

০৭

সার ডিলার নিয়োগ ও বালাইনাশকের লাইসেন্স প্রদান

৪.১সার ডিলার ও খুচরা সার বিক্রেতা নিয়োগ

· প্রতিটি ইউনিয়ন হতে এক(০১) জন BCICসারের ডিলার ও প্রতি ওয়ার্ডে এক(০১) জন খুচরা সার বিক্রেতা নিয়োগের ব্যবস্থা করা হয়।

◊সরকারী নীতিমালা অনুযায়ী সার ডিলার নিয়োগ প্রক্রিয়ায় দীর্ঘ সূত্রিতা।

◊প্রতি ওয়ার্ডে একজন খুচরা সার বিক্রেতা দ্বারা সুষম সার ব্যবস্থাপনায় জটিলতা

◊একই ইউনিয়ন বা উপজেলায় পূর্বে নিযোগকৃত একাধিক ডিলারদের বর্তমান নীতিমালা অনুসারে ইউনিয়ন ভিত্তিক ডিলারশীপ বন্টনে জটিলতা।

৪.২ বালাই নাশকের খুচরা ও পাইকারী বিক্রেতার লাইসেন্স প্রদান

· বালাইনাশকের খুচরা ও পাইকারী বিক্রেতার লাইসেন্স প্রদান।

· বালাইনাশকের মান ও বাজার নিয়ন্ত্রণ।

◊বালাইনাশকের ক্ষতির ব্যবহার বিষয়ক জ্ঞানের অভাব।

◊যথাযথ বালাইনাশক ব্যবহারে কৃষকের বিভ্রান্তি।

◊দক্ষ জনবলের অভাব।

০৮

সংনিরোধ

সংনিরোধ সেবা

◊কোয়ারেনটাইন রুলস প্রয়োগের মাধ্যমে সমুদ্র,স্থল ও বিমান বন্দরে বৈদেশিক রোগবালাই এর অনুপ্রবেশ ও বিস্তার প্রতিরোধ করা।

◊দেশের অভ্যন্তরে ও আঞ্চলিক পর্যায়ে মারাত্বক বালাই অনুপ্রবেশ ও বিস্তার রোধে সেবা প্রদান করা।

◊সংগনিরোধ কার্যক্রমে প্রয়োজনীয় জ্ঞান ও সচেতনতার অভাব।

◊দক্ষ জনবলের অভাব।

◊জনবলের অপর্যাপ্ততা।

০৯

মনিটরিং

৯.১ সার মনিটরিং

◊সারের আগমনী বার্তা প্রাপ্তির পর বিধি মোতাবেক বিক্রয়ের অনুমতি প্রদান।

◊সার উত্তোলন, মজুদ ও সরবরাহ কার্যের নিয়ন্ত্রণ ও মনিটরিং।

◊সারের মান ও বাজার নিয়ন্ত্রণ।

◊ভেজাল সারের নমুনা সংগ্রহ ও পরীক্ষাগারে প্রেরণ পূর্বক আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন।

◊কারখানা থেকে সময় মতো বরাদ্দ না পাওয়ায় হয়রানির স্বীকার।

◊সময় মতো সার সরবরাহে যোগাযোগ ও পরিবহনে সমস্যা।

◊সার ব্যবস্থাপনায় দুর্বল আইন

৯.২ বালাই

নাশকের মনিটরিং

◊সারেরনাশকেরমান ও বাজার নিয়ন্ত্রণ।

◊ভেজাল নাশকেরনমুনা সংগ্রহ ও পরীক্ষাগারে প্রেরণ পূর্বক আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ।

◊জনগণের সচেতনতা ও যথাযথ জ্ঞানের অভাবে অনেক সময় ভেজাল/নকল ও মেয়াদোতীর্ণ বালাইনাশক কিনে প্রতারিত হয়।

◊পরিদর্শক কর্তৃক ভেজাল ও নকল বালাইনাশকমজুদকারীর বিরুদ্ধে তাৎক্ষনিক শাস্তি প্রয়োগের বিধান না থাকায় আইনের ফাক ফোকর দিয়ে অপরাধী বেশীর ভাগ ক্ষেত্রেই পার পেয়ে যায়।

১0

LCCব্যবহার

লীফ কালার চার্ট ব্যবহার

· লীফ কালার চার্ট ব্যবহার করে ধান ফসলে সঠিক মাত্রায় ইউরিয়া সারের ব্যবহার বিষয়ে কৃষকদেরকে পরামর্শ প্রদান।

◊কৃষকদের পর্যাপ্ত জ্ঞানের অভাব।

◊পর্যাপ্ত পরিমাণে লীফ কালার চার্ট (LCC) সরবরাহের অভাব।

১১

গুটি ইউরিয়া ব্যবহার

গুটি ইউরিয়া ব্যবহার

◊গুটি ইউরিয়া প্রয়োগ করে ধান ফসলে ইউরিয়া সার সাশ্রয়ে কৃষকদের পরামর্শ প্রদান।

◊কৃষকদের পর্যাপ্ত জ্ঞানের অভাব।

◊পর্যাপ্ত প্রয়োগ যন্ত্রের স্বল্পতা।

◊প্রয়োগ যন্ত্র সরবরাহের স্বল্পতা।

◊মান সম্মত প্রয়োগ যন্ত্রের অভাব

১২

মাটির স্বাস্হ্য সংরক্ষণ

মাটির স্বাস্হ্য সংরক্ষণ।

· মাটির স্বাস্হ্য সেবায় সুষম সার প্রয়োগ, জৈব সার প্রয়োগ ও শস্য পযার্য় বিষয়ে কৃষকদেরকে পরামর্শ প্রদান ও সহায়তা করা।

· উপজেলা পর্যায়ে Soil Testing Kit ওমৃত্তিকাসম্পদউন্নয়নইনষ্টিটিউটএরপরীক্ষাগারওভ্রাম্যমাণ মৃত্তিকাপরীক্ষাগারেকৃষকের মাটি পরীক্ষা পূর্বক ফসল ভিত্তিক সারের মাত্রা নির্ধারণ করে সার প্রয়োগের সুপারিশপ্রদান।

· উপজেলা নির্দেশিকা অনুসারে সার সুপারিশ প্রদান করা।

· শস্য পর্যায় ভিত্তিক ফসল আবাদ পরিকল্পনা প্রনয়ণে সহায়তা প্রদান।

· জৈব কম্পোষ্ট, ভার্মি কম্পোষ্ট, খামারজাত সার প্রস্তুত ও ব্যবহারে কৃষকদেরকে প্রয়োজনীয় কারিগরী সহায়তা প্রদান।

◊অধিক জনসংখ্যার খাদ্য চাহিদা মেটাতে খাদ্য উৎপাদন বৃদ্ধির জন্য শস্যের নিবিড়তা বৃদ্ধি পাওয়ায় জমির উপর চাপ বেড়েছে।

◊জমির স্বাভাবিক উর্বরতা শক্তির নিম্নমুখীতা।

◊কৃষকদের মাটির স্বাস্হ্য রক্ষা বিষয়ক কারিগরী জ্ঞানের অভাব।

◊কৃষকদের উৎসাহ কম।

◊মাটির স্বাস্হ্য রক্ষার পর্যাপ্ত কর্মসূচী ও প্রণোদনার অভাব।

১৩

পরামর্শ

১৩.১ সমন্বিত বালাই

ব্যবস্হাপনা

· আইপিএম ও আইসিএম ক্লাবের মাধ্যমে পরিবেশ সম্মত উপায়ে ফসলের রোগ ও পোকামাকড় দমনে কার্যকরী প্রশিক্ষণ ও পরামর্শ প্রদান।

· ফসলের বালাই নিয়ন্ত্রণের সমন্বিত বালাই ব্যবস্থাপনা কার্যক্রমের প্রযুক্তি প্রয়োগে নিয়মিত পরামর্শ ও প্রশিক্ষণ প্রদান।

এই প্রযুক্তির কার্যকারিতা রাসায়নিক প্রযুক্তির তুলনায় ধীর গতি সম্পন্ন বিধায় কৃষকের আগ্রহ কম।

বিষয়টি শ্রমঘন ও সময় সাপেক্ষ বিধায় কৃষকের প্রযুক্তি প্রয়োগে আগ্রহ কম।

◊জৈব বালাইনাশক; ফেরোমেন ট্যাপের অপর্যাপ্ততা।

জৈব বালাইনাশকের প্রয়োগের সরকারী নীতিমালার অভাব।

১৩.২ সেচ ব্যবস্হাপনা

· সেচ ব্যবস্থাপনা প্রযুক্তির উপর প্রশিক্ষণ ও পরামর্শ প্রদান।

· সেচ কাজে ভূপরিস্থ পানি ব্যবহারে কৃষকদের উদ্বুদ্ধ করা।

· পানি প্রয়োগে AWD(Alternate Wet & Dry)প্র্রযুক্তি ব্যবহারে কৃষকদেরকে পরামর্শ প্রদান।

◊সেচ খরচ বেশী।

◊ভূপরিস্থ সেচের পানির অভাব।

◊পানির চাহিদা বিষয়ে কৃষকের জ্ঞানের অভাব।

◊অনেক ক্ষেত্রে সেচ খরচ হিসাবে উৎপাদিত ফসলের ১/৪ বা ১/৬ অংশ প্রদান করতে হয়।

◊স্হায়ীভাবে সেচ অবকাঠামো স্হাপনের জন্য পর্যাপ্ত আর্থিক সহায়তা অপ্রতুল।

◊নীতিমালার অভাব।

◊বিদ্যুতের লোডশেডিং

১৩.৩ প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবেলায় পরামর্শ প্রদান

· বিভিন্ন প্রাকৃতিক দুর্যোগ যেমন খরা, বন্যা,ঝড়, লবনাক্ততা, শীলাবৃষ্টি, জলাবদ্ধতা, জলোচ্ছ্বাস ইত্যাদি সংক্রান্ত প্রাকৃতিক দূর্যোগের পূর্বাভাস ও দূর্যোগ মোকাবেলায় প্রয়োজনীয় পরামর্শ প্রদান।

◊প্রয়োজনীয় জ্ঞান ও সচেতনতার অভাব।

◊পূনর্বাসন ও কৃষকদের আর্থিক সঙ্গতির অভাব।

◊পর্যাপ্ত সহায়তার অভাব।

◊দ্রুততার সাথে দূর্যোগের পূর্বাভাস সময়মতো উপকার ভোগীদের নিকট না পৌঁছানো।

◊যথাযথ সাহায্যের অপ্রতুলতা।

১৩.৪ বসতবাড়ীর আঙ্গিনায় সবজি চাষ

· কৃষক/কৃষাণীদের বসতবাড়ীর আঙ্গিনায় সবজি চাষ ব্যবস্হাপনায় প্রয়োজনীয় পরামর্শ প্রদান।

· পারিবারিক পুষ্টি বিষয়ক প্রশিক্ষণ ও পরামর্শ প্রদান।

· সবজি বীজ উৎপাদনে পরামর্শ প্রদান।

◊উপর্যুক্ত জ্ঞানের অভাব।

◊বসতবাড়ীর আঙ্গিনায় পর্যাপ্ত জমির অভাব।

◊বসতবাড়ীতে সূর্যালোকের অভাব

◊উন্নত মানের বীজের অভাব।

◊পুষ্টি জ্ঞান বিষয়ক দক্ষ জনবলের অভাব।

১৩.৫ ফল বাগান সৃজন ও ব্যবস্হাপনা

· উন্নত জাতের দেশী ও বিদেশী ফলের বাগান সৃজনে কৃষকদেরকে উদ্বুদ্ধকরণ ও প্রয়োজনীয় পরামর্শ প্রদান।

· ফলবাগান ব্যবস্থাপনায় কৃষকদেরকে প্রয়োজনীয় পরামর্শ প্রদান।

◊প্রয়োজনীয় প্রযুক্তিগত জ্ঞানের অভাব।

◊মান সম্মত উন্নত জাতের চারার অভাব।

◊অপরিকল্পিত বৃক্ষরোপণ

◊উন্নত জাতের মাতৃগাছের অভাব।

◊ফল সংরক্ষণাগারের অভাব।

◊অপর্যাপ্ত যোগাযোগ ব্যবস্থা।

◊ফল প্রক্রিয়াজাতকরণের অভাব।